জেনে নেই নফল সদকার বর্ণনা অর্থাৎ নফল সদকা কি ভাবে আদাই করবে এ সমপর্কে মাসআলা। - Tipsjano24.com

জেনে নেই নফল সদকার বর্ণনা অর্থাৎ নফল সদকা কি ভাবে আদাই করবে এ সমপর্কে মাসআলা।

আসসলামুয়ালাইম

পরম করুনাময়,অসীম দয়ালু মহান আল্লাহ পাকের নামে শুরু করছি।

কেমন আছেন সবাই?আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি।আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে হাজির হয়েছি…নফল সদকার বর্ণনা অর্থাৎ নফল সদকা কি ভাবে আদাই করবে এ সমপর্কে মাসআলা নিয়ে,,।

নফল সদকার বর্ণনা

যাকাত এবং ছদকায়ে ফিতর ব্যতিত আর এক প্রকার ছদকা আছে,
তা হলাে নফল ছদকা। নফল ছদকা, যা মা-বাবা, আত্মীয় স্বজন, এতিম
মিসকিন, প্রতিবেশি ও ভিক্ষুক ইত্যাদি সকলকে দেয়া যায়। মৌলিক
প্রয়ােজন, ঋণ, জরুরী খরচাদি এবং ওয়াজিব হকসমূহ আদায় করার পর
যা বাড়তি থাকে তা থেকে এ সকল ছদকা আদায় করা উত্তম। আর
গােনাহের কাজে এ ছদকা ব্যয় করবে না। নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লাম খায়বার বিজয়ের পরে তাঁর
পবিত্র স্ত্রীগণকে এক বছরের খাের-পোষ অগ্রিম প্রদান করেছিলেন। কিন্তু নিজের জন্যে কিছুই সঞ্চয় করেন নি। যা কিছু তাঁর হাতে আসতাে তা
তিনি আল্লাহ তায়ালার রাস্তায় দান করে দিতেন। হযরত বেলাল (রাযি)
কে তিনি বলতেন।
বেলাল! খরচ করতে থাক এবং আরশের মালিক থেকে অভাবের আশংকা করাে না।” তবে বাজে কাজে সম্পদ খরচ করবে না। কেননা, অপচয়কারীকে
আল্লাহ তায়ালা শয়তানের ভাই বলে আখ্যায়িত করেছেন।
অপচয় হলাে এমন কাজে ব্যয় করা যাতে না আছে কোন ছওয়াব না আছে।
দুনিয়াবী কোন ফায়দা। মূলত: নিজের প্রতি যতটুকু হক রয়েছে এর
অধিক গুরুত্ব দেয়ার কোন যৌক্তিকতা নেই।


মাসআলা :

নফল ছদকা সর্বাগ্রে হাশেমী গােত্রের লােকদের প্রদান করা
উচিত। কেননা, তাদের জন্যে যাকাত খাওয়া হারাম। আর নবী সালাল্লাহু
আলায়হি ওয়াসাল্লামের আত্মীয় হিসেবে বিনয় ও শ্রদ্ধার সাথে তাদেরকে
দান করতে হবে।


মাসআলা:

নফল ছদকা জিম্মিদের (যে সকল কাফের ইসলামী রাষ্ট্রে কর দিয়ে বসবাস করে) প্রদান করা জায়েজ আছে। কিন্তু হরবীদের (কাফের রাষ্ট্রের নাগরিক) কে দেয়া জায়েজ নয়।
মাসআলা ও মেহমানের মেহমানদারী করা তিনদিন পর্যন্ত সুন্নতে
মুয়াকৃদাহ। তারপর মুস্তাহাব।

আল্লাহ্ তালা আমাদের কে এর উপর আমল করার তৌফীক দান করুন,,,আমিন,, সবাই সুস্তো থাকেন ভালো থাকেন আবর পরে দেখা হবে নতুন কোন বিষয় আল্লাহ্ হাফেয,,,,।

এক্সেলনোড প্রো টিপস গুলো ইনবক্সে পেতে ভুলবেন না!

About the Author: Nahid hasan

জানাতে নয়,,,,,,,,,,,,,,জানতে ও শিখতে এসেছি,,,,,,,,,,।।।

You May Also Like

Leave a Reply